দলিল রেজিষ্ট্রেশন আইন

দলিল রেজিষ্ট্রেশন আইন ও নীতিমালা

সাধারন ভাবে দলিল বলতে কোনো লিখিত বিবারণ যাহা আইনগত সাক্ষ্য হিসাবে গ্রহনযোগ্য। পরিভাষায় রেজিষ্ট্রেশনের বিধান মোতাবেক কোনো লিখিত ডকুমেন্ট  যাহা নির্দৃষ্ট বিধিমালা মোতাবেক সম্পাদন হয়ে থাকে তাকে দলিল বলা হয় । আমরা দলিল বলতে শুধু জমির দলিলকে বূঝি কিন্তু আসলে দলিল বলতে বিধিমালা মোতাবেক সকল প্রকারের লিখিত পরিপত্র । জমিজমার ক্ষেত্রে জমির মালিকানা প্রমানের লিখিত স্বাক্ষ্যই  দলিল – সাক্ষ্য আইন 1872 এর 3  নাং  ধারা অনুযায়ী দলিল বলতে বুঝায় কোন পদার্থের উপর  কোন অক্ষর  বা সংখ্যা অথবা চিহ্নের সাহায্যে ব্যাবহার হলে তাকে দলিল বলা হয় ।

রেজিষ্ট্রেশন আইন

দলিল রেজিষ্ট্রেশনের কার্যক্রম নিদৃষ্ট আইন মোতাবেক করতে হয় । যে কোনো দলিল সম্পাদনের তিন মাসের মধ্যে রেজিষ্ট্রেশন করতে হবে। এরং registration Act 1908 বিধিমালা মোতাবেক  ১০০ টাকার কম  মূল্যের স্থাবর সম্পত্তি হস্তান্তরের ক্ষেত্রে রেজিষ্ট্রেশন বাধ্যতা মূলক নয় ।

কিন্তু registration Act 1908 বিধিমালা (Act no : xvi of 1908 এর section 69 এর প্রদত্ত ক্ষমতা বলে inspector  General of registration rules 1937 সংশোধন করা হয় ।

এবং সেখানে registration Act 2004 । registration Act 2008 সালের বিধীমালা মোতাবেক ১০০ টাকার কম  মূল্যের স্থাবর সম্পত্তি হস্তান্তরের ক্ষেত্রে রেজিষ্ট্রেশন বাধ্যতা মূলক করা হয়েছে।

registration Act 1908 এর সংশোধন ধারাবাহিকতা

স্বাধীনতার পরে গণপ্রজাতন্ত্রী  সরকার বাংলাদেশ  সংবিধানের অনুচ্ছেদের বিধানমতে 1908 সনের নিবন্ধন আইনের 16 নাং আইন পূর্ব ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশে বলবৎ রহিয়াছিলো।  তাহা পর্যায় ক্রমে সংশোধন করা হয়।

নিবন্ধন নীতিমালা সংশোধনের তালিকা

= 1985 সনের (50 নাং অধ্যায়দেশ)

= 2002 সনের 14 নাং আইনে  নিবন্ধন নীতিমালা সংশোধনকৃত

= 2004   সনের 25 নাং আইনে  নিবন্ধন নীতিমালা সংশোধনকৃত

= 2006 সনের 27 নাং আইনে  নিবন্ধন নীতিমালা সংশোধনকৃত

= 2012 সনের 41 নাং আইনে  নিবন্ধন নীতিমালা সংশোধনকৃত

দলিল রেজিষ্ট্রারের স্থান নির্ধারণ সম্পর্কিত আইন

1908 সালের আইন এর 28  বিধি  অনুসারে স্থাবর সম্পত্তির দলিল রেজিষ্ট্রেশনের জন্য – যে কোনো সাব-রেজিষ্ট্রারে উপস্থাপনা করা যেতো ।

কিন্তু রেজিষ্ট্রার আইন 1985 এর মাধ্যমে দলিলে উল্লেখিত জমি যে এরিয়াতে সেই এরিয়ার সাব-রেজিষ্ট্রারে দলিল রেজিষ্ট্রার করতে হবে ।

সুতারাং যদি কোনো ব্যেক্তি নিজ সাব-রেজিষ্ট্রার বাদ দিয়ে একই জেলার ভিতরের অন্য কোনো সাব-রেজিষ্ট্রারে দলিল রেজিষ্ট্রেশন করেন । তাহলে সাব-রেজিষ্ট্রার উক্ত দলিল টি  সাব-রেজিষ্ট্রার আইনের 64 ধারা মোতাবেক উক্ত দলিলের তফসিলে বর্ণিত এরিয়ার সাব-রেজিষ্ট্রারের কাছে দলিলটা প্রেরণ করবেন ।  এবং উক্ত দলিলটা ১নাং রেজিষ্ট্রারে ফাইলভূক্ত করবে ।

অতঃপর: নিজ সাব-রেজিষ্ট্রার দলিলটা পেয়ে রেজিষ্ট্রার আইনের 65 ধারা মোতাবেক জেলা রেজিষ্ট্রারের নিকট  প্রেরণ করবে ।

উল্লেখ্য এই যে : রেজিষ্ট্রার আইন 2002 এবং 2004 অনুযায়ী নিজ সাব-রেজিষ্ট্রার ছাড়া দলিল রেজিষ্ট্রেশন করা যাবেনা ।

 

error: Content is protected !!